Wednesday, December 26, 2007

Definitions - I

অয়ি কিন্নরী!


এসো এসো আমার ঘরে………..”

সুন্দরের সংজ্ঞা কি? এ পৃথিবীকে আমরা যেভাবে দেখতে চাই তাই আসলে প্রত্যেকের কাছে তাই তার সৌন্দর্যের রূপ। আত্মীয়-পরিজন-পরিবার-সঙ্গী সবার জন্য, নিজের জন্য সমাজকে আমরা একরকমভাবে সাজাতে চাই, সেই রূপই হয়ে উঠে আমাদের সৌন্দর্যবোধের পরিচায়ক, আর আমাদের কর্ম হয়ে যায় আমাদের সেই জ্ঞানের প্রকাশক। প্রত্যেকেরই নিজস্ব সৌন্দর্যচেতনা থাকে। এরকম আলাদা আলাদা সৌন্দর্যচেতনার তবুও একটা সাধারণ রূপ বিদ্যমান, অর্থাৎ সমসাময়িক নন্দনতত্ত্ব বলে একটা ব্যপার আছে। এর বাইরে চিরন্তন বা শ্বাশ্বত সুন্দরের কোনো অস্তিত্ব আছে বলে মনে হয় না।

সৌন্দর্যবোধ কিভাবে তৈরী হয়? এই প্রশ্নের উত্তর আর অনেকগুলি নৈতিকতা বা সাপেক্ষবস্তুর উৎপত্তির মতো একভাবে ব্যাখ্যা করা যায় কিনা সেটা একটু বিবেচ্য। যত নীতিশাস্ত্র এ যাবৎ আলচিত-আবিষ্কৃত তার মধ্যে সবচেয়ে ব্যপক অথচ সাধারণ মিলের জায়গাটা হলো মানুষের সার্বিক মঙ্গলসাধন। এটা কি আসলে সার্বিক মানুষের উন্নয়ন? যদি তাই হয় তবুও সৌন্দর্যের আপেক্ষিকতার ব্যপারটাকে পুরোপুরি ত্যাগ করা যায় না। কারণ হলোঃ সভ্যতা বা জ্ঞান তথা দৃষ্টিভঙ্গীর পরিবর্তন। অনুভূতিগুলি না হলেও প্রভাবকগুলি অবশ্যই আপেক্ষিক। সর্বোপরি, সৌন্দর্যের উপর সমকালীন দর্শনগুলির প্রভাব অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই।

সৌন্দর্যের লক্ষণগুলি কি? এটা আর সব বস্তুবাদী চিন্তার মতই আরেকটা চেষ্টা। আবশ্যিক বৈমূর্তায়নে যাবার আগে আমাদের এরকম একটা চেষ্টা থাকাটাই ন্বাভাবিক। এখানে চলে আসে সুন্দরের পূর্ণাঙ্গ আর খর্বিত রূপের ধারণা। সুন্দরের খর্বিত রূপ বলতে আসলে এখন আর কোনো কিছু আর নেই, কারণ মানুষ আর বিচ্ছিন্ন নয়, এটা হতে পারে বোঝার ভুল, মোহ কিংবা ভাবালুতার আতিশয্য। যেটা গুরুত্বপূর্ণ সেটা অবশ্যই সার্বিক রূপ। শান্তির ধারণার মতোই সৌন্দর্যও একটা পূর্ণাঙ্গ অবস্থার বৈশিষ্ট্য, তাই এর লক্ষণসমূহ প্রকাশ পাবে এর আঙ্গিকতায়। খর্বিত অবস্থায়ও মানুষ একে খুঁজে পাবে, যেমনঃ সুন্দর মুখ, সুন্দর জলবায়ু ইত্যাদি ইত্যাদি। তাই যত খুশি অতিমানবীয় করে তোলা যায় সৌন্দর্যের এই বিচ্ছিন্ন রূপ ও তার অনুভূতিগুলিকে-

সুন্দর, তুমি এসেছিলে আজ প্রাতে

………………………….

কতবার আমি ভেবেছিনু, উঠি উঠি,
আলস ত্যজিয়া পথে বাহিরাই ছুটি।

উঠিনু যখন গিয়েছ চলে-

দেখা বুঝি আর হল না তোমার সাথে।।

(গীতাঞ্জলি, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর)

কিন্তু সার্বিকরূপটা সবসময়ই সমাজের প্রতিফলক, সত্যিকারের সাহিত্য, কলা এর মাঝেই ধরে রাখে সামাজিক প্রত্যেকটা নিয়ামকের মধ্যে সম্পর্কগুলিকে।


"...What we demand is the unity of politics and art, the unity of content and form, the unity of revolutionary political content and the highest possible perfection of artistic form..."- Mao Tse Tung

2 comments:

Alor Chhota said...

moher chhotay pray-i vule jai soundorjo ki jinis... mone hoy moho-tai bujhi sotyi... tokhon-i vese jai protiniyoto boye chola dharay... soundorjo theke dure... onek dure...

Swakkhar Shatabda said...

oneke abar bohe sobai naki mohogrosto, karo moho ektu boro, karo ta choto :D

Juktibadirao naki mohogrosto!!